বলিউড পাড়ার ছয় ইঞ্জিনিয়ারের গল্প

0
1205

বিনোদন ডেস্ক: ছোট থেকে স্বপ্ন দেখতেন লাইট, ক্যামেরা, অ্যাকশনের। তাইতো ইঞ্জিনিয়ার হয়েও আজ তারা বলিউডের প্রিয় তারকা বনে গেছেন। চোখ রাখব বলিউডের এমন কয়েকজন নায়ক-নায়িকার দিকে যারা ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়াশোনা করেও পেশা হিসাবে বেছে নিয়েছেন অভিনয়।

রীতেশ দেশমুখ:
সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়-এ এম টেক রীতেশ দেশমুখ। কিন্তু স্বপ্ন ছিল অভিনয় করার। তাই আর ইঞ্জিনিয়ার হয়ে ওঠা হয়নি। এবছর বলিউডের অস্কার ফিল্মফেয়ারে সেরা ভিলেনের তকমা পেয়েছেন রীতেশ। কিছুদিন আগে একটি পুত্র সন্তানের বাবা হয়েছে নায়ক।

সুশান্ত সিং রাজপুত: 
চাকরি কোনদিনই পছন্দ ছিলনা সুশান্তের। স্বপ্ন দেখতেন নায়ক হওয়ার। তাইতো ডিসিই-র মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্র হয়েছে ঘুরে ফিরেছেন বলিপাড়ায়। ‘কিস দেশ মে হ্যায় মেরা দিল’ এবং ‘পবিত্র রিস্তা’-র মতো সিরিয়ালে দর্শকদের মন জয়ের পর বলিউডে ‘কাই পো চে’ সিনেমার মাধ্যমে অভিষেক হয় সুশান্ত সিংহ রাজপুতের।

আমিশা প্যাটেল:
সিনেপর্দায় এখন তেমন দেখা যায় না এই নায়িকাকে। তবে ‘কহো না পিয়ার হ্যায়’-এর অভিনেত্রী আমিশা পটেল বোস্টন ইউনিভার্সিটির বায়োমেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার।

তাপসি পান্নু:
তাপসি পান্নু কম্পিউটার সায়েন্সে বি-টেক করেছেন। তবে শুধু নায়িকা নয়। বলিঅন্দরের খবর, পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালির পরবর্তী ছবিতে প্রযোজক হিসাবে দেখা যাবে তাপসিকে। ২০১১ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত দক্ষিণী ছবি ‘কাঞ্চা’র রিকেম হতে চলেছে। অ্যাকশন, থ্রিলার ও রোম্যান্সে ভরপুর এই ছবিটিরই প্রযোজক তাপসি।

সোনু সুদ: 
নাগপুর থেকে ইলেট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে বি-টেক করেছেন সোনু সুদ। তবে যেখানে ভালোবাসা নেই, সেখানে কি কাজ করা যায়। তাই নিজের পছন্দকে আজ পেশা করে নিয়েছেন এই নায়ক।

কীতি সোনানা: 
এই নায়িকাও কম যান না, কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার কিন্তু ছোট থেকে নায়িকা গ্ল্যামারের দুনিয়া হাতছানি দিত তাঁকে, তাই সব ছেড়ে আজ রুপোলি দুনিয়ার পরিচিত মুখ কীর্তি। রোহিতের ‘দিলওয়ালে’ ছবিতে রয়েছেন এই নায়িকা। এখানে কীর্তির বিপরীতে রয়েছেন শোনান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here