স্বপ্নের মতো সুন্দর করে সাজাতে পারবেন জীবন যে ৭ টি ব্যাপারে ‘না’ বলতে পারলে

0
632

না বলতে পারা আসলে অনেক বড় একটি গুণ তা কি আপনারা জানেন? অনেকেই মনে করে কাউকে বা কোনো কিছুকে সরাসরি না বলে দেয়াটা বেয়াদবি। তিনি কি ভাববেন, জীবনে কি হবে এই ‘না’ বলার কারণে, এইসব ভেবে অনেকেই মুখের সামনে চলে আসা ‘না’ শব্দটি বলতে পারি না মুখ ফুটে। আর এর ফলে অনুরোধে ঢেঁকী গিলে বিপদেই ফেঁসে যাই। নিজের চোখের সামনেই নিজের জীবনটাকে তছনছ করে ফেলি, স্বপ্নটাকে মেরে ফেলি শুধুমাত্র ‘না’ বলতে না পারার কারণে। কিন্তু জীবনে কিছু ক্ষেত্রে সব দ্বিধা ভুলে না বলে ফেলা অত্যন্ত জরুরী। হতে পারে এই না বলার কারণেই আপনি জীবনটাকে স্বপ্নের মতো সুন্দর করে সাজাতে পারবেন। ১) ভুল একটি সম্পর্ককে ‘না’ বলে দিন একেবারেই ভাববেন মানুষ কি বলবে। আপনার সম্পর্কটি যদি দাম্পত্যের হয় বা প্রেমের হয় তারপরও এই কাজটি করুন। ভুল সম্পর্কে থেকে জীবনটাকে নষ্ট করে প্রতিদিন ধুঁকে ধুঁকে মরার চাইতে না বলে দেয়া খুবই বুদ্ধিমানের কাজ। ২) নিজের প্রতি অন্যের অমূলক আশাটাকে ‘না’ বলুন দয়া করে অন্যের আশা পূরণের জন্য নিজের স্বপ্ন আর কতকাল মেরে ফেলতে থাকবেন। তার চাইতে নিজের কথা বলে বোঝানোর চেষ্টা করুন না আপনজনকে। তারা আপনার ভালো চান, অবশ্যই আপনার কথা বুঝতে পারবেন। ৩) নিজের গণ্ডিটাকে ‘না’ বলুন নিজে একটি গণ্ডিতে থাকলে কখনোই নিজের স্বপ্ন পূরণ করতে পারবেন না। তাই নিজের গণ্ডিটাকে বড় করুন বা একেবারেই ঝেড়ে ফেলে দিন। এতে করে আপনার জীবনের সফলতা আরও সামনে এগিয়ে আসবে। ৪) আপনার জীবনের জন্য ক্ষতিকর মানুষকে ‘না’ বলুন এমন মানুষ থাকে জীবনে যারা শুধুই আমাদের পিছনে আঁকড়ে ধরে রাখেন কিন্তু আমরা ভদ্রতার খাতিরে তাদের ছেড়ে দিতে পারি না। এতে কিন্তু তাদের কোনো ক্ষতি হচ্ছে না, পিছিয়ে যাচ্ছেন আপনিই। সুতরাং এদেরকে দয়া করে না বলে এগিয়ে চলুন সামনে। ৫) অন্যের জন্য অপেক্ষা করাকে ‘না’ বলুন আরেকজনের মুখাপেক্ষী হয়ে বসে থাকলে আপনার ভাগ্যে শুধুই বিফলতা অপেক্ষা করবে। অন্য আরেকজনের সাহায্যের আশায় বসে থাকার মনোভাবটিকে না বলে দিন আজকেই। নিজের জন্য যা করার, নিজেই করে নিন। ৬) নিজের হতাশাটাকে ‘না’ বলুন হতাশা এমন একটি জিনিস যা শুধুই আপনাকে বিষণ্ণতায় ফেলবে এবং আপনার সকল কর্মক্ষমতা নিমেষেই নষ্ট করে ফেলবে। জীবনটাকে নষ্ট করতে না চাইলে নিজের এই স্বভাবটাকেই না বলুন। ৭) আরেকজনের কথায় চলাকে ‘না’ বলুন অন্য আরেকটি মানুষ আপনার সম্পর্কে কি বলল না বলল তা চিন্তা করে পথ চলার বিষয়টিকে না বলুন। আপনি যেভাবেই চলুন না কেন মানুষ আপনার সম্পর্কে কথা বলবেই। আপনি কি প্রতিবারই তা শুনে চলবেন? নিজের প্রতি বিশ্বাস রাখুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here