২০ বছর ধরে ইট ও মাটি খেয়ে জীবনরক্ষা

0
1228

আপনি কি কোন মানুষকে ইট,মাটি ও বিল্ডিং ম্যাটেরিয়ালস খেয়ে ক্ষুধা মেটাতে দেখেছেন। ভারতের কর্নাটক রাজ্যের একটি গ্রামের পাক্কিরাপ্পা হুনাগুন্ডি নামের এক ব্যক্তি প্রতিদিন তিন কেজি মাটি ও মাটি খেয়ে ক্ষুধা নিরারণ করে থাকেন। তিনি গত ২০ বছর ধরে কেবল মাটি আর ইট খেয়েই বেঁচে আছেন।

৩০ বছর বয়সী হুনাগুন্ডি সর্বপ্রথম ১০ বছর বয়সে থেকে গ্রামের দেয়ালের ইট খাওয়া শুরু করেছেন। এরপর আর অন্য কিছু খাননি। হুনাগুন্ডি জানিয়েছেন, ইট ও মাটি যখন থেকে খাওয়া শুরু করেছেন তারপর থেকে তার কোন রোগ-ব্যাধি হয়নি।
ইট ও মাটি খাওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, আমি খাবার হিসেবে মাটি ও ইট পছন্দ করি। অন্য কিছু না। কারণ এটাই আমার অভ্যাস। আমি প্রতিদিনই ইট আর মাটি খাই। আমি চাইলেও এটা বন্ধ করতে পারব না।

তবে পাক্কিরাপ্পার মা ও বন্ধু-বান্ধবরা তার এই অভ্যাস ত্যাগের জন্য নানান চেষ্টা করলেও সফল হননি। তবে বর্তমানে ইট খাওয়ার অভ্যাস ত্যাগ করার কোনো ইচ্ছাই নেই তার। বরং তিনি নিজের ইট ও মাটি খাওয়ার দক্ষতা দেখিয়ে মানুষকে মুগ্ধ করতে সারা ভারত সফরের পরিকল্পনা করছেন। যদিও তার এমন আচরণে বিস্মিত তার এলাকার বাসিন্দারা।

তার এমন ইট ও মাটি খাওয়াকে অসুস্থতা ও একধরনের মানসিক রোগ বলেই দাবি চিকিৎসকদের। যে রোগের কারণে পুষ্টিহীন খাবার খাওয়ার প্রতি এক ধরনের আকর্ষণ বোধ করেন তিনি।

তবে পাক্কিরাপ্পা পুষ্টিহীন খাবার না খেলেও সুস্থ-স্বাভাবিকভাবে বেঁচে আছেন। তিনি নিজেকে পূর্ণ সুস্থ বলেই দাবি করেন।