অবাক নয় সত্য, এবার ‘বডিবিল্ডার গরু

0
1506

 

বডিবিল্ডার মানুষ রয়েছে আমরা জানি। বডিবিল্ডার গরুও রয়েছে। এ তথ্যটা হয়তো অনেকেই জানি না। বেলজিয়ামে এমন বডিবিল্ডার গরু রয়েছে। তবে এর জন্য তাদের কোন ব্যয়াম করানো হয়না। প্রকৃতিগত ভাবেই তারা বডিবিল্ডার। গরুর ওই প্রজাতিটির নাম ব্লু বুল। এটি বিবিবি নামেও পরিচিত।
এটি পৃথিবীর সর্বোচ্চ পেশীবহুল গরুর জাত। এদের পেশী এতটাই পুরুষ্ট ও উন্নত হয় যে, কখনো কখনো এদের ডবল মাসল গরুও বলা হয়। তবে ডবল মাসল মানে এই নয় যে, সাধারণ গরুর তুলনায় এদের দ্বিগুন পেশির সংখ্যা, পেশী গুলো এতটাই উন্নত হয় যে, দেখে মনে হতে পারে, সাধারণ গরুর তুলনায় এদের দুইটি করে মাসল রয়েছে।
তবে তাদের কোন প্রকার স্টেরয়েড জাতীয় বা বাংলাদেশে যাকে গরু মোটা তাজাকরন ওষুধ বলা হয়, সেই ধরণের কোন কৃত্রিম ক্ষতিকারক ওষুধ কিংবা পরীক্ষাগারে কোন প্রকার জিনগত পরিবর্তন না করেই সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে তৈরী করা হয়েছে এই বেলজিয়াম ব্লু বুলকে।
তাহলে কিভাবে তৈরী করা হল এই ভয়ঙ্কর পেশীবহুল গরুকে? হ্যাঁ এজন্য লেগেছে একশ বছরেরও বেশি সময়। শুধুমাত্র ভাল পেশীবহুল গরুর সাথে অন্য একটি ভাল পেশীবহুল গরুর প্রজনন ঘটিয়ে ঘটিয়েই বানানো হয়েছে এই বেলজিয়াম ব্লু গরুদেরকে। আর এজন্য লেগে গেছে বছরের পর বছর।
একশ বছরেও অধিক সময়ে শুধুমাত্র উন্নত পেশীর গরুদের মধ্যে প্রজনন ঘটিয়ে সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে তৈরী হয়েছে এই গরু। যার ফলে এটি সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক, তাই খাদ্য হিসাবে এটি সম্পূর্ণ নিরাপদও। তবে বর্তমানে প্রযুক্তি আধুনিকায়নের ফলে, এদের প্রজনন আরো বেশি নিয়ন্ত্রিত করতে, এখন আর এদের গরুতে গরুতে সরাসরি মিলন হতে দেয় না, বরং ভালো পেশীবহুল ষাড়ের থেকে কৃত্রিম উপায়ে শুক্রানু সংগ্রহ করে, তা অন্যপেশীবহুল গরুর দেহে দিয়ে প্রজনন ঘটনো হয়, যার ফলে এদের প্রজনন আরো বেশি নিয়ন্ত্রিত থাকে,যা ভবিষ্যতে বেলজিয়াম ব্লু গরুকে আরো বেশি পেশিবহুল করে তুলবে।
একটি পূর্ণ বয়স্ক বেলজিয়াম ব্লু গরু সাধারণ সাড়ে চার ফুট থেকে সাড়ে পাঁচ ফুট লম্বা হয়। তবে বর্তমানে এদের বাচ্চা এত বেশী পেশীবহুল হয়ে উঠেছে, যার ফলে স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় মা গরুর পক্ষে বাচ্চা প্রসব করা সম্ভব হয়ে উঠছে না, তাই প্রায় ৯০% মা গরুকে অস্ত্রোপাচার বা সিজারিয়ানের মাধ্যমে বাচ্চা প্রসব করতে হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here