Tuesday, April 16, 2024
Google search engine
অবাক বিশ্বএ কেমন মা

এ কেমন মা

ঝেজিয়াং, ১৭ জুলাই- সন্তানকে রক্ষা করতে হেন কাজ নেই যা একজন মা করতে পারেন না। প্রয়োজনে নিজের জীবনও দিয়ে দিতে পারেন। দেশ-বিদেশ-মানুষ-জন্তু-জানোয়ার নির্বিশেষে সব মা-ই এক্ষেত্রে একরকম। তাঁরা সন্তানের ব্যাপারে কোনও কিছুর সঙ্গে আপোস করেন না। কিন্তু, আজ এমন এক মায়ের কথা বলব, যিনি সন্তানের জন্ম দিলেও তাঁকে আদৌ ‘মা’ বলা যায় কি না, তা নিয়ে যথেষ্ট সংশয় রয়েছে। কারণ এই মায়ের কাছে নিজের সন্তানের স্বাস্থ্যের থেকেও অনেক বেশি ‘দামি’ তাঁর সাধের BMW গাড়িটি। চীনের ঝেজিয়াং প্রদেশের ঘটনা। নিজের BMW গাড়িতে ৩ বছরের ছেলেকে নিয়ে বেরিয়েছিলেন এক মা। তিনি গাড়ি থেকে নেমে যাওয়ার পর, কোনওভাবে শিশুটি গাড়ির ভেতরে থাকা অবস্থাতেই গাড়ির দরজা লক হয়ে যায়। কিছুতেই সেই দরজা খোলা যায়নি। এদিকে, ক্রমেই বদ্ধ গাড়ির ভিতর বাড়তে থাকে গরম। দম বন্ধ হয়ে আসে শিশুটির। সে মায়ের কাছে যাওয়ার জন্য ত্রাহি স্বরে চিৎকার শুরু করে। শিশুটির কান্না শুনে ভিড় জমে যায় রাস্তায়। তাঁদেরই একজন দমকলে খবর দিলে, চলে আসেন দমকলের কর্তারাও। আর মা? না, বাচ্চাকে অবিলম্বে বের করার জন্য ইট-পাথর ছুড়ে গাড়ির কাচ ভাঙার চেষ্টা তিনি করেননি। সবচেয়ে তাজ্জব বিষয়, যখন স্থানীয় মানুষ ও দমকল কাচ ভেঙে বাচ্চাটিকে উদ্ধারের চেষ্টা করেন, তখন মা-ই তাঁদের বাধা দেন। সন্তানের জন্য সাধের BMW-র কাচ ভাঙাটা সমিচীন মনে করেননি তিনি। তিনি অপেক্ষা করছিলেন লক খোলার লোক আসার জন্য। ক্রমেই বাচ্চাটি কাহিল হয়ে পড়তে শুরু করে। তখন আর মায়ের কথা না শুনে, জোর করে গাড়ির কাচ ভাঙেন দমকলের কর্মীরা। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করা হয় বাচ্চাটিকে। নির্মম এই মায়ের তীব্র সমালোচনা করে, ঝড় উঠেছে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে। অনেকে কটাক্ষ করে বলেছেন, গাড়িটাই ওই মায়ের নিজের সন্তান।

আরও পড়ুন-

এমন আরও কিছু আর্টিকেল

Google search engine

জনপ্রিয়