বলিউডের হাস্যকর মিথ্যা

0
1495

কি নেই বলিউড সিনেমা? দুর্দান্ত অ্যাকশন, রোমান্স, দুষ্টুমি, দুশ্চিন্তা ও আবেগে ভরপুর তাদের চলচ্চিত্রগুলো। আর তাই সিনেমা প্রেমীদের কাছে আছে বলিউডের সিনেমার অন্যরকম আবেদন।

তবে এই সিনেমাগুলো আমাদেরকে সবসময় দেখাচ্ছে কিছু হাস্যকর মিথ্যা। জেনে নিন তাহলে।

লাল তার কাটলেই বোমা নিষ্ক্রিয়
ধরুন আপনার সামনে একটি টাইম বোমা আছে। কিভাবে নিষ্ক্রিয় করবেন সেটাকে? নিশ্চয়ই লাল তার কেটে দেবেন? ভুলেও এই কাজ করতে যাবেন না, কারণ এটা পুরোপুরিই বলিউডের প্রভাব। যেই ব্যক্তি বোমা বানায় সে নিশ্চয়ই এতো বোকা না!

দৌড়েই দ্রুত গতির চলন্ত ট্রেনে ওঠা সম্ভব
ট্রেন ছুটছে দ্রুত গতিতে। আর লম্বা স্কার্ট পরে, ব্যাগ নিয়ে নায়িকা দৌড়াচ্ছে ট্রেনের প্রায় সমান গতিতে! দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে জায়েঙ্গে এ কথা মনে আছে? এরপর আরো নানান সিনেমাতেই এই দৃশ্য দেখা গিয়েছে। চেন্নাই এক্সপ্রেসেও একই দৃশ্য দেখানো হয়েছে। কিন্তু বাস্তবেই কি ট্রেনের সমান গতিতে দৌড়ে নিরাপদে ট্রেনে ওঠা সম্ভব?

লং জাম্প
বলিউডের সিনেমার নায়করা হরহামেশাই লাফ দিয়ে এক বিল্ডিং থেকে আরেক বিল্ডিং এ ঝাপ দিচ্ছে। উঁচু বিল্ডিং থেকেও লাফিয়ে পড়ছে হর হামেশাই। এক ঘুষিতে উড়িয়েও দিচ্ছে একসঙ্গে কয়েকজনকে। বাস্তবেই কি এরকম লাফ দেয়া সম্ভব? তাহলে আর সুপার ম্যানের প্রয়োজন কি বলুন?

যখন তখন রাস্তায় নাচ
ব্যস্ত রাস্তায় চলছে অনেক গাড়ি। যেখানে রাস্তা পার হওয়াই মুশকিল সেখানে নাচ এর তো প্রশ্নই ওঠে না। কিন্তু এমনই অসম্ভবকে সম্ভব করে দেয় বলিউডের সিনেমা গুলো। যখন তখন রাস্তা-ঘাট, বাস, মার্কেটে নাচতে দেখা যায় বলিউডের নায়ক নায়িকাদেকে।

শেষ মূহূর্তেও প্লেনের সিট
অনেক আগে বুকিং দিয়েও প্লেনের সিট পেতে হিম সিম খেতে হয়। কিন্তু বলিউডের নায়ক বা নায়িকা হলে একেবারে শেষ মিনিটে এসেও অনায়েসেই সিট পাওয়া যায় যে কোনো প্লেনে। এমন অসম্ভব ব্যাপারই দেখা যায় অনেক সিনেমাতেই।

চশমা খুললেই আতেল থেকে আবেদনময়ী হওয়া যায়
বলিউডের সিনেমাগুলোতে এমনটা হর হামেশাই দেখানো হয়। একটি মেয়ে চশমা পরে বেশ সাদাসিধে চেহারায় থাকে। চশমাটা খুলে ফেললেই সে হয়ে যায় নায়কের চোখে আবেদনময়ী নায়িকা। কিন্তু বাস্তবেও কি তাই?