বাড়িতেই বানান বাহারি বালুশাই

0
1668

নরম তুলতুলে আর রসাল। এক কামড়েই স্বর্গীয় স্বাদ! উফফ… জীবনভোর ভোলা দায়। একটাতে মন ভরে না। বাঙালি কেন, গোটা ভারতীয়রাই জানে বালুশাই-র জনপ্রিয়তা।
পুজো একেবারে দোরগোড়ায়। বাড়িতে লোকজনের ভিড়। কতরকমের য়ে রান্না। এখন তো আবার ইটিং আউটের যুগ। তবে বাড়িতে বানানো মিষ্টির কিন্তু আলাদা স্বাদ ।আবার চমকও হয় নতুন নতুন রান্না করে।পুজোর আগে তাই বালুশাহীর রেসিপি-টা নোট করে নিন।
প্রধাণত এটি দক্ষিণ ভারতের একটি জনপ্রিয় মিষ্টি। যার নাম বাদুশা। তবে এখন সর্বত্রই পাওয়া যায়। বাঙালিরা এটিকে বালুশাই বলে থাকে।
চটপট, সুস্বাদু ৪টি বালুশাহী করতে মোট সময় লাগবে আধঘন্টা। এখন কী কী লাগবে দেখে নেওয়া যাক।

উপকরণ:
ময়দা (১ কাপ), বাটার বা ঘি (২ টেবিল চামচ), বেকিং পাউডার (হাফ চা চামচ), বেকিং সোডা (১/৪ চা চামচ), দুধ (হাফ কাপ), চিনি (১চা চামচ), তেল (ডিপ ফ্রাইংয়ের জন্য ২ কাপ)।

সিরাপের জন্য:
চিনি (১ কাপ), জল (৩ কপ), লেবুর রস (১ চা চামচ)।

পদ্ধতি:
একটি বড় মিক্সিং বোলে ময়দা, বেকিং পাউডার, বেকিং সোডা ও চিনি নিয়ে ভালো মেশান। তাতে ঘি বা বাটার মিশিয়ে হাতে করে মাখুন।প্রয়োজন হলে ময়দা ও ঘি অল্প করে নিতে পারেন।নরম ও শুকনো করে মাখা হয়ে গেলে তাতে দুধ আস্তে আস্তে ঢালুন। বেশি প্রেশার দিয়ে মাখবেন না।মাখা হয়ে গেলে ২০ মিনিট একটি ডাম্প ক্লথ দিয়ে ঢেকে রাখুন। এবার ৪টি ভাগে ভাগ করে নিন। লুচির লেচি যেমন করে করা হয় তেমনি করুন। দুহাতের মধ্যে নিয়ে গোল পাকিয়ে নিয়ে অল্প চাপ দিন। চ্যাপ্টা আকার দিন। মধ্যিখানে বুড়ো আঙুল দিয়ে অল্প গর্ত করুন। ভালো দেখতে লাগবে।
একটি প্যানে তেল গরম করতে দিন। লেচি থেকে একচিমটে নিয়ে তেলে ছেড়ে দেখে নিন, বাদুশাগুলি ভাজার উপযুক্ত হয়েছে কিনা। ঠিকঠাক গরম হয়ে গেলে প্রথমে ২ টি তেলে ছাড়ুন। এবার গরম প্যানটি আভেন থেকে নামিয়ে রেখে বাদুশাগুলি ১ মিনিট ধরে ভাজুন। এমনি করে পরেরগুলোও ভাজুন। ভাজা হয়ে গেলে কিচেন টাওয়েলে রেখে দিন। যাতে করে বাদুশা থেকে তেল অনেকটা টেনে নেয়।
সিরাপের জন্য, একটি সসপ্যানে জল নিন।তাতে চিন দিয়ে ফোটাতে থাকুন। চিনি গলে গেলে লেবুর রস দিয়ে দিন। আভেন বন্ধ করে দিন।
এবার বাদুশাগুলি সিরাপের মধ্যে দিয়ে দিন। এপিঠ-ওপিঠ করে-সব জায়গাতেই সিরাপের প্রলেপ লাগান। ১০ মিনিট রেখে দিন। বাদুশার মধ্যে সিরাপ ঢুকে গেলে প্লেটে সাজিয়ে রাখুন। পরিবেশনের সময় এলাচ ছড়িয়ে দিতে পারেন। দেখতে ভালো লাগবে।