বিয়ের পর প্রেম কমে যায় কেন

0
716

‘বিয়ের পর তুমি আমাকে আর আগের মতো ভালোবাস না’, ‘তোমার প্রেম কমে গেছে- তাই না?’ – এমন অভিযোগ হরহামেশাই শুনতে পাওয়া যায়। তাহলে কী সত্যিই বিয়ের পর প্রেম কমে যায়? ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ায় বিয়ের পর কেন প্রেম কমে যায় সে বিষয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে।

‘আমাদের অনুভূতি অনেক দ্রুত বদলে যায়। আবার পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করে আবেগের তীব্রতাও অনেকটা কমে যায়। তাই প্রেম কমে যাচ্ছে এই কথাটি বলা একেবারে ভুল হবে না। কারণ তাদের মধ্যেই এক সময় অনেক আকর্ষণ কাজ করত যা এখন আর তারা খুঁজে পান না। এ জন্যই একজন আরেক জনের প্রতি প্রেম কমে যাওয়ার অভিযোগ করেন’ – এমনটা জানিয়েছেন ক্লিনিক্যাল সাইকোলোজিস্ট ড. বর্ষা পটকর।

আমরা সবসময় ভুলে যাই যে কোনো অনুভূতিই চিরস্থায়ী নয়। সেটা ভালোবাসা হোক আর ঘৃণা। তার মানে এই নয় যে, পৃথিবীর সব মানুষই বিয়ের পরও অন্য কারো প্রতি টান অনুভব করে। এটা একেক জনের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য। কেউ দমিয়ে রাখতে পারে আবার কেউ প্রয়োজনের অতিরিক্ত প্রকাশ করে ফেলে।

ড. বর্ষা আরো বলেন, ‘এটা খুবই স্বাভাবিক একটা বিষয় যে আপনি বিবাহিত থাকা অবস্থায় অন্য কারো প্রতি আকর্ষণ অনুভব করতেই পারেন। কিন্তু এই অনুভুতির পরিবর্তন ঘটতেই থাকবে সময়ের সাথে। আপনি হয়তো এরপর আবারও অন্য কারো প্রেমে পড়তে পারেন। তবে আপনি কেমন টান অনুভব করছেন এটা বোঝার আগেই কোনো সিদ্ধান্ত না নেওয়াটাই বুদ্ধিমানের কাজ। আমি আশা করি এত সব অনুভূতির ভিড়ে একজনের প্রতিই আপনি আপনার প্রেম ধরে রাখবেন।’

অন্যদিকে মনোবিজ্ঞানী ড. সাঞ্জু গম্ভীর বলেন, ‘জোরপূর্বক কোনো সম্পর্ক বেশি দিন টেকে না। আপনি যদি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ না করেন তাহলে সেই সম্পর্ক টিকিয়ে রাখা বেশ কষ্টসাধ্য একটা বিষয় হবে আপনার জন্য। কিন্তু এটাও আপনাকে বুঝতে হবে যে, স্বার্থপর হওয়াটা কোনো সমাধান নয়। যদি আপনার প্রেম শেষ হয়েও যায় সঙ্গীর কথা চিন্তা করে অন্তত সম্পর্কে প্রেম ধরে রাখুন।’

ড. সাঞ্জু আরো বলেন, ‘যদি আপনার সঙ্গী আপনাকে সত্যি ভালোবাসে তাহলে সে আপনার পরিস্থিতিটি বোঝার চেষ্টা করবে। তবে আপনাকেও সময় দিতে হবে আপনার সঙ্গীকে, আপনার সম্পর্ককে। যদি সব চেষ্টাই বৃথা হয়ে যায় দুজনের সমঝোতায় দ্রুত সঠিক সিদ্ধান্ত বেছে নেওয়া উচিত।’

যে লক্ষণগুলো দেখে বুঝবেন আপনাদের মধ্যকার প্রেমের অনুভূতি ধীরে ধীরে শেষ হয়ে যাচ্ছে-

কোনো রকম টান অনুভব করছেন না

যাকে ভালোবেসে বিয়ে করলেন তাকে আর সহ্যই করতে পারছেন না? সত্যি কী তাই? এটাও সম্ভব যদি সঙ্গীর প্রতি কোনো রকমই টান অনুভব না করেন। তাহলে ধরে নিবেন আপনাদের প্রেমে ফাটল ধরেছে। কোনোভাবেই তা আর জোড়া লাগানো সম্ভব না। এখন বাকি রয়ে গেছে শুধুই দায়িত্ব।

শারীরিক সম্পর্কে অনীহা

বিয়ের কিছুদিন পরই কেউ কেউ আছেন যাদের শারীরিক সম্পর্কের প্রতি অনীহা চলে আসে। এটা কাজের চাপের কারণেও হতে পারে আবার ইচ্ছাকৃতও হতে পারে। যদি একজন আরেকজনের প্রতি টান অনুভব না করেন তাহলে এমনটা হতেই পারে। এর ফলে ধীরে ধীরে প্রেম কমতে থাকে।

খোঁজ-খবর নেওয়ারও প্রয়োজন মনে করেন না

বিয়ে হয়ে গেছে। এর মানে এটা ভাববেন না যে, সে তো আমারই আছে। বারবার ফোন দিয়ে খোঁজ নেওয়ার কী দরকার? এমনটা যদি ভেবে থাকেন, তাহলে এটা নিশ্চিত যে আপনাদের প্রেম আসলেই কমে যাচ্ছে।

সঙ্গীর সাথে আছেন ঠিকই কিন্তু সঙ্গীর মাঝে নেই

হয়তো আপনারা এক সঙ্গে সিনেমা দেখছেন, শপিং করছেন, বাইরে খেতে যাচ্ছেন। অথচ খুব একটা নিজেরা কথা বলছেন না। ফোনকেই সঙ্গীর থেকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন। এর মানে একসঙ্গে আছেন ঠিকই, কিন্তু মনের দিক থেকে একজন আরেকজন থেকে কয়েক গজ দূরে আছেন। আর এই দূরত্বই ধীরে ধীরে আপনাদের প্রেমের ইতি টানছে।

সম্পর্ক ভেঙে যাচ্ছে ভেবেও আপনার খারাপ লাগছে না

কোনো অনুভূতি বা টান না থাকার কারণে আপনাদের সম্পর্ক ধীরে ধীরে ভাঙার পথে এগোচ্ছে। অথচ আপনার একটুও খারাপ লাগছে না। সঙ্গীকে হারানোর ভয়ও আপনার মধ্যে কাজ করছে না। তাহলে বলা যায়, এই সম্পর্ক যদি দায়িত্বের কারণে টিকেও থাকে তবুও এতে থাকবে না কোনো প্রেম, থাকবে না কোনো অধিকার।